মাস্ক তৈরির মেশিন , মাস্ক লুপিং মেশিন




অনেক দেশেই লকডাউন তুলে নেয়ার শর্ত হিসেবে বাধ্যতামূলক করা হয়েছে ফেসমাস্ক পরা। চিকিৎসকের জন্য নির্দিষ্ট ফেসমাস্ক বা শ্বাস নিতে পারা যায় এমন শক্তভাবে আঁটা মুখের ঢাকা স্বাস্থ্যকর্মী এবং বৃদ্ধ নিবাসে যারা বয়স্ক ও অসুস্থদের দেখাশোনা করে তাদের জন্য রাখার কথা বলা হচ্ছে। অনেক দেশেই ফেসমাস্ক না পরলে জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে। আমাদের দেশেও জরিমানার দৃশ্য দেখা যায়।
আমাদের বাংলাদেশে অনেক অফিস, আদালত, বিপনীবিতানে ফেসমাস্ক ছাড়া ঢুকতে দেয়া হয় না। আপনি নিজেই ঘরে বসে  এই মাস্ক বানানোর চেষ্টা করতে পারেন। এতে আমাদের দেশে মাস্কের চাহিদা পুরন হবে ও পাশাপাশি আপনি একটি সর্মসংস্থান তৈরি করে লাভবান হইতে পারবেন। 

বর্তমানে আমাদের দেশে অনেকেই মাস্কের অটো মেশিন কিনে মাস্কের ফেক্টরি দিয়েছেন। তবে মাস্কের অটো মেশিন ২ প্রকার হয়।
  • এক প্রকার মেশিনে মাস্কের কাপড়  ও ফিতা ডুকিয়ে দিলে অটো মাস্ক তৈরি হয়। তবে এই মেশিনের দাম বেশি তাই আমাদের দেশে হাতে গুনা কয়েকটা আছে।
  • আরেক প্রকার মেশিনে সুধুমাত্র অটো মাস্কের বডি তৈরি হয়। আলাদা ফিতা লাগাইতে হয়। এই মেশিনের দাম অল্প কম। তাই এই মেশিনের সংখা বেশি। 

আপনারা চাইলে এই বডি ও ফিতা কিনে মাস্কের ফিতা লাগিয়ে মাস্ক রেডি করে বিক্রি করতে পারবেন। মাস্কের ফিতা লাগানোর সবচাইতে উন্নত মেশিনের মূল্য মাত্র ৪৫,০০০ টাকা। আমাদের কাছেও পাবেন।


আমাদের এই মেশিনে মুলত মাস্কের লুপিং করা হয়। অর্থাৎ আপনি এই মেশিন দিয়ে মাস্কের ফিতা লাগাইতে পারবেন। আমাদের দেশে বর্তমানে রেডিমেট ফিতা ছাড়া মাস্ক পাওয়া যায় অনেক কম রেটে। আপনি সেই মাস্ক কিনে ফিতা লাগিয়ে কম্পিলিট করে বেশি দামে বিক্রি করতে পারবেন।

যোগাযোগ করুন
এম এস মেশিনারিজ, রাজেন্দ্রপুর রেলগেইট,গাজীপুর
০১৯৩৩৪৫৭৭১০, ০১৭৯৭৪৯৮১৬০

Post a Comment

0 Comments